Home / বাংলাদেশ / বাংলাদেশি ওয়েটারের সততায় মুগ্ধ মাহাথির কন্যা

বাংলাদেশি ওয়েটারের সততায় মুগ্ধ মাহাথির কন্যা

mahthir daughter২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৫: মালয়েশিয়ায় কর্মরত বাংলাদেশিরা তাদের সততা এবং আন্তরিকতার জন্য দেশটিতে ব্যাপক সুনাম কুড়িয়েছেন।সম্প্রতি বাংলাদেশি এক ওয়েটারের সততায় মুগ্ধ হয়েছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদের কন্যা মারিনা মোহাম্মদ।

ওয়েটার মুনির হোসেইনের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তার সততার কাহিনী ফেসবুকে বিস্তারিত বর্ণনা করেন মারিনা। ঘটনাটি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি হয়।

ফেব্রুয়ারির ১২ তারিখ মাহাথির কন্যা লো ইয়াট প্লাজার একটি কাবাবের দোকানে গিয়েছিলেন। খাবার খেয়ে তাড়াহুড়া করে বেরিয়ে যান তিনি। এসময় মুনির হোসেইন দেখতে পান, মারিনা তার আইপ্যাড ফেলে গেছেন।

এর পরই মুনির, মারিনার সেক্রেটারিকে ফোন করে বিষয়টি জানান।   তার বডিগার্ড এসে আইপ্যাডটি নিয়ে যান। কিন্ত সততার পুরস্কার দিতে চাইলে তিনি কোনো কিছু নিতে অস্বীকৃতি জানান। বডিগার্ড মুনিরের একটি ছবি তুলে নিয়ে যান।

এদিকে কৃতজ্ঞ মারিনা ফেসবুকে বাংলাদেশি ওয়েটারের ছবি আপলোড করে লিখেন, প্রত্যেকের মুনির হোসেনের সঙ্গে দেখা করা উচিত। সে আমার আইপ্যাড ফেরত দিয়েছে। আপনারা যদি লো ইয়াট প্লাজায় যান, তাহলে বেসমেন্টের ফুড কোর্টে গিয়ে মুনিরকে আমার হয়ে হ্যালো বলবেন। সে চমৎকার একটি ছেলে।

তিনি তার বন্ধুদের প্রতি আহবান জানিয়ে লিখেন, আপনারা কাবাবের স্টলে খাবার কিনলে দোকানের মালিকের উপকার হয়। কিন্ত কর্মচারীদের কোনো লাভ হয় না। তাই আপনারা যদি তাদের জন্য কিছু করতে চান, তাহলে তাদের খাবার কিনে দিন। এভাবেই সরাসরি তাদের উপকার করা যাবে।

বর্তমানে মালয়েশিয়ার ক্রমবর্ধমান অপরাধের জন্য বিদেশি শ্রমিকদের দায়ী করা হয়। এই ধরনের ঘটনা সেই কলংকে কিছুটা হয়তো প্রলেপ দেবে।

তবে মারিনা লিখেন, কে বলেছে পৃথিবীতে সৎ মানুষ নেই? কাবাব বিক্রেতাকে ধন্যবাদ। আমি এই ঘটনা ভুলবো না।

Leave a Reply