Home / প্রচ্ছদ / ফ্রান্সের ম্যাগাজিন চার্লি হেবদোর কার্যালয়ে বন্দুকধারীদের হামলায় ১২ জন নিহত

ফ্রান্সের ম্যাগাজিন চার্লি হেবদোর কার্যালয়ে বন্দুকধারীদের হামলায় ১২ জন নিহত

france 1ঢাকা: মুহম্মদ (স.) এর ক্যারিকেচার প্রকাশ করে ব্যাপক সমালোচিত ফ্রান্সের ম্যাগাজিন চার্লি হেবদোর কার্যালয়ে বন্দুকধারীদের হামলায় ১২ জন নিহত হয়েছে।

বুধবার রাজধানী প্যারিসে এ হামলায় আরও ১০ জন আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। নিহতদের মধ্যে দুই পুলিশ এবং সম্পাদকসহ চার কার্টুনিস্টও রয়েছেন বলে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বন্দুকধারীরা পত্রিকা অফিসে ঢুকে রাইফেল দিয়ে এলোপাতাড়ি গুলি চালায়।

একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, দু’জন কালো মুখোশ পরা লোক ওই ভবনের মধ্যে প্রবেশ করেন এবং কয়েক মিনিটের মধ্যে ব্যাপক গোলাগুলির শব্দ শোনা যায়। ঘটনার পর ওই বন্দুকধারীকে পালিয়ে যেতে দেখা গেছে।

পুলিশের মুখপাত্র জাভিয়ের কাস্তাইং জানিয়েছেন, মুখোশধারী তিন লোক পত্রিকার কার্যালয়ের লবিতে ঢুকে এলাপাতাড়ি গুলি করে। তারা সবাই একে-৪৭ রাইফেল বহন করছিল। হামলাকারীরা একটি গাড়িতে করে পালিয়ে যাওয়ার আগে পর্যন্ত কয়েক মিনিট ধরে গোলাগুলি চলে।

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওলাঁদ বলেছেন, কোনো সন্দেহ নেই যে এটা সন্ত্রাসী হামলা। এটা নজিরবিহীন বর্বরতা বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

পুলিশ জানিয়েছে, বন্দুকধারীদের ধরতে ওই এলাকায় অভিযান চালানো হচ্ছে।

এই ব্যঙ্গাত্মক সাপ্তাহিকটি সমসাময়িক ঘটনাকে সবসময় কটাক্ষ করার কারণে বিভিন্ন সময়ই সমালোচিত হয়েছে। ২০১১ সালে নভেম্বরে নবী মুহাম্মদের (সা.) ব্যঙ্গকার্টুন ছাপার একদিন পরেই এর কার্যালয়ে বোমা হামলা হয়।

চার্লি হেবদোর সর্বশেষ বিতর্কিত টুইটটি ছিল ইসলামিক স্ট্রেটের নেতা আবু বকর আল বাগদাদিকে নিয়ে।

এই পত্রিকাটি কখনোই অতোটা জনপ্রিয় ছিল না। তাদের সার্কুলেশন ছিল অত্যন্ত কম। এমনকি অর্থাভাবে এটি ১৯৮১ সালের পর টানা ১০ বছর প্রকাশনা বন্ধ রাখে।

তবে সম্প্রতি প্রচ্ছদের বিতর্কিত ব্যঙ্গ কার্টুন এবং অমার্জিত হেডলাইনের কারণে সংবাদপত্রের দোকান এবং রেলস্টেশনের বইয়ের দোকানে ভালোই বেচাবিক্রি হয়।

Leave a Reply